1. admin@pathagarbarta.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৫:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আন্দোলনের নামে মুক্তিযুদ্ধের অবমাননাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি একাত্তরে বাংলাদেশে গণহত্যার ন্যায়বিচার ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য বিশ্বের বিশিষ্টজনদের আহবান দুই বঙ্গকন্যা ব্রিটিশ মন্ত্রীসভায় স্থান পাওয়াতে বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরামের আনন্দ সভা ও মিষ্টি বিতরন যৌন প্রজনন স্বাস্থ্য অধিকার নেটওয়ার্ক নিয়ারস্ নির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত অনুবাদক অধ্যক্ষ মোঃ কোরেশ খান এবং গবেষক ও ড.রণজিত সিংহের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত সাংবাদিক শাহাব উদ্দিন বেলালকে স্মরণ ও স্মারক প্রকাশনা অনুষ্ঠিত সিলেটের মেয়রের কাছে আলতাব আলী ফাউন্ডেশনের স্মারকলিপি প্রদান মুক্তিযুদ্ধ আমার অহংকার- দেবেশ চন্দ্র সান্যাল বৃটেনের কার্ডিফ বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের উদ্দ্যোগে ঈদ পূনর্মিলনী অনুষ্ঠিত অনলাইন সাহিত্য গ্রোপের ঈদ পুনর্মিলনী

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে তরুন প্রজন্মের বই পড়ার বিকল্প নেই  – উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম

পাঠাগার বার্তা
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ২১৭ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার : স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা শ্রী রবীন্দ্র চন্দ্র দাস গ্রন্থাগার’ কর্তৃক প্রকাশিত স্মারক-সংকলন ‘মুক্তাক্ষর’ এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান ও বই পাঠ বিষয়ক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। তিনি আরো বলেন- “সোনার বাংলা গড়তে সোনার মানুষ হতে হবে। আর সোনার মানুষ হতে হলে আমাদের সবাইকে ভালো বই পড়তে হবে। সামাজিক অবক্ষয় রোধ করতে বই পড়তে হবে। আর বই পড়ার উৎকৃষ্ট জায়গা হচ্ছে গ্রন্থাগার। আমরা যদি নিয়মিত গ্রন্থাগারে গিয়ে বই পড়তে পারি, তাহলে গ্রন্থাগারই হবে একদিন দিন বদলের হাতিয়ার।” বিগত ১৫ মে শনিবার দুপুরে নবীগঞ্জ উপজেলার মুক্তাহার গ্রামে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা শ্রী রবীন্দ্র চন্দ্র দাস গ্রন্থাগার’- এর পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও বাংলাদেশ বেসরকারি গণগ্রন্থাগার পরিষদের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রত্নদীপ দাস রাজুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক গৌতম দাশের পরিচালনায় সভার শুরুতে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও খ্যাতিমান শিক্ষক স্বর্গীয় রবীন্দ্র চন্দ্র দাস’র বিদেহী আত্মার শান্তি কামনায় ১ মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন – নবীগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা শাকিল আহমেদ, ৭নম্বর করগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুলর রহমান, নবীগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক প্রধান শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিপুল দেব, উপজেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ভানু লাল দাশ, ৫ নং ওয়ার্ড মেম্বার ফনী ভূষন দাশ, প্রভাষক উত্তম কুমার দাশ, শংকর চক্রবর্তী, পরেশ চন্দ্র দাশ, দীলিপ চন্দ্র দাশ, গ্রন্থাগারের কো-ফাউন্ডার রত্নেশ্বর দাস রামু, ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কপিল কান্তি দাশ, ফনী দাশ, কুটিশ্বর দাশ স্মৃতি সাহিত্য পরিষদ-এর প্রচার ও গণসংযোগ সম্পাদক শুভ্রেন্দু দাশ, গ্রন্থাগারের পাঠক ফোরাম-এর সভাপতি অপূর্ব দাশ, সহ-সভাপতি সাগর দাশ জনি, সহ-সভাপতি দেবাশীষ দাশ রতন, সাধারণ সম্পাদক দ্বীপ দাশ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপ্ত দাশ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব দাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক কনিক দাশ শুভ, প্রচার সম্পাদক সঞ্জু দাশ,উপ-প্রচার সম্পাদক মৃদুল দাশ, দপ্তর সম্পাদক পার্থ দাশ, তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক প্রতীক দাশ, উপ-তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক সজীব দাশ, গণসংযোগ সম্পাদক পার্থ দাশ -(২),  সাংস্কৃতিক সম্পাদক পার্থ দাশ -(৩), সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদক জয় দাশ, সদস্য দীপ্র দাশ, রাজু দাশ। ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক ফোরামের সহ-সভাপতি সৌরভ দাশ, সাধারণ সম্পাদক নিউটন দাশ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক স্বপন দাশ (এসডি), যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অনিক দাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক রিপন দাশ, প্রচার সম্পাদক জয় দাশ, তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক অনিক দাশ (অন্তর), সদস্য গৌরা দাশ, পলাশ দাশ, নিপেশ দাশ, দুর্জয় দাশ, জীত দাশ, দীপ শেখর দাশ, সজীব দাশ, বিদ্যোৎ দাশ প্রমুখ।
সভায় বক্তাগণ বলেন- বর্তমানে তরুণ প্রজন্ম যখন ভার্চুয়াল জগতে নিমজ্জিত হয়ে নিজেদের ভবিষ্যত অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিচ্ছে, সেই পরিস্থিতিতে  ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা শ্রী রবীন্দ্র চন্দ্র দাস গ্রন্থাগার’ তরুনদের বই পড়াতে কাজ করে যাচ্ছে। শুধু তাই নয়, এই গ্রন্থাগারের বই পড়া বিষয়ক উদ্ভুদ্ধ করন অভিনব কর্মসূচি আলোকিত বাংলাদেশ গড়ার পথে বিশেষ ভূমিকা রাখবে। সারা দেশে যখন যুবকরা টাকার পিছনে দৌড়-ঝাপ করছে, এই সময় এই গ্রন্থাগারের সদস্যরা মানুষকে বই পড়তে উদ্ভুদ্ধ করছে, যা বাংলাদেশের বই পড়া আন্দোলনকে আরো বেগবান করবে। প্রত্যন্ত অঞ্চলে প্রতিষ্ঠিত ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা শ্রী রবীন্দ্র চন্দ্র দাস গ্রন্থাগার’-এর কার্যক্রম আলোকিত বাংলাদেশ গড়াতে যেরূপ কাজ করে আসছে, তার ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারলে তা একদিন বাংলাদেশের বেসরকারি গণগ্রন্থাগারের ইতিহাসে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হবে। গ্রন্থাগার কর্তৃক প্রকাশিত স্মারক-সংকলন ‘মুক্তাক্ষর’ হবিগঞ্জ জেলার বেসরকারি গণগ্রন্থাগার ও মুক্তাহার গ্রামের ইতিহাসে এক মাইলফলক হয়ে থাকবে, কারন ‘মুক্তাক্ষর’ হবিগঞ্জ জেলার বেসরকারি গণগ্রন্থাগার থেকে ও মুক্তাহার গ্রাম থেকে প্রথম প্রকাশিত কোন গ্রন্থ বা স্মারক-সংকলন, যা তরুণ সমাজ ও ভবিষ্যত প্রজন্মকে উজ্জীবিত করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

এক ক্লিকে বিভাগের খবর

error: Content is protected !!