1. admin@pathagarbarta.com : admin :
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৫:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কোটা সংস্কারের আন্দোলন ঘিরে গৃহযুদ্ধ সৃষ্টির ষড়যন্ত্র চলছে- ছাত্র প্রতিনিধিদের সঙ্গে নির্মূল কমিটির যৌথ সভা কোটা আন্দোলনকারীদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী স্লোগানের নিন্দা জানিয়েছে জাস্টিস ফর বাংলাদেশ জেনোসাইড ১৯৭১ ইন ইউকে সমাজকর্মী আনসার আহমেদ উল্লাহকে বঙ্গবন্ধু পরিষদের সংবর্ধনা আন্দোলনের নামে মুক্তিযুদ্ধের অবমাননাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি একাত্তরে বাংলাদেশে গণহত্যার ন্যায়বিচার ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য বিশ্বের বিশিষ্টজনদের আহবান দুই বঙ্গকন্যা ব্রিটিশ মন্ত্রীসভায় স্থান পাওয়াতে বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরামের আনন্দ সভা ও মিষ্টি বিতরন যৌন প্রজনন স্বাস্থ্য অধিকার নেটওয়ার্ক নিয়ারস্ নির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত অনুবাদক অধ্যক্ষ মোঃ কোরেশ খান এবং গবেষক ও ড.রণজিত সিংহের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত সাংবাদিক শাহাব উদ্দিন বেলালকে স্মরণ ও স্মারক প্রকাশনা অনুষ্ঠিত সিলেটের মেয়রের কাছে আলতাব আলী ফাউন্ডেশনের স্মারকলিপি প্রদান

ডিস্কো কিং

পাঠাগার বার্তা
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ১৭১ বার পঠিত

লিয়াকত হোসেন খোকন

সুরের জগতের ফের ইন্দ্রপতন – লতা মঙ্গেশকর, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের পর অনেক কম বয়সে জীবনাবসান হল সুরস্রষ্টা, গায়ক বাপ্পি লাহিড়ীর। মাত্র ৬৯ বছরে তাঁর প্রয়াণে উপমহাদেশের গানের সাম্রাজ্য শোকে মূহ্যমান। বাপ্পি লাহিড়ীকে বলা হয় ডিস্কো গানের কিং। তাঁর ডিস্কো গানের ছোঁয়া এক সময় আমাদের বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়েছিল। বাংলাদেশেও একসময় ডিস্কো গানের ধাঁচে গান তৈরি হতো। এমন একটি উল্লেখযোগ্য গান হলো – ” ডিস্কো মারো ডিস্কো মারো… “। বাপ্পি লাহিড়ীর গানের অবিকল সুরে বাংলাদেশের সুরকাররা গান সৃষ্টি করে কোনও কোনও সিনেমায় জুড়ে দিয়ে ছবি হিট করিয়েছিল। বাপ্পি লাহিড়ীর সুরের অবিকল ধারায় বাংলাদেশের সুরকারদের সৃষ্টি খ্যাতনামা শিল্পীদের কন্ঠের গান আজও পথে প্রান্তরে জনতার মুখে মুখে ফিরে।

বাপ্পি লাহিড়ীর জন্ম জলপাইগুড়িতে ১৯৫২ সালের ২৭ নভেম্বর – কিন্তু তাঁর কয়েক পুরুষ আগের আদিপুরুষদের বাড়ি ছিল বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়ায় – আজও লাহিড়ী নামে একটি রেলস্টেশন আছে। এই স্টেশনটি বাপ্পি লাহিড়ীর পূর্বপুরুষদের স্মৃতি বহন করে চলেছে। বাপ্পি লাহিড়ীর আসল অলোকেশ লাহিড়ী। তাঁর বাবা অপরেশ লাহিড়ী আর মা বাঁশরী লাহিড়ী দু’জনেই বাংলা সঙ্গীত জগতে ছিলেন পরিচিত নাম। মাত্র উনিশ বছর বয়সে মুম্বাই পাড়ি দেন বাপ্পি লাহিড়ী। ১৯৭৩ সালে হিন্দি ছবি নানহা শিকারী’তে তিনি প্রথম গান তৈরি করেন। শুধু ডিস্কো গানের মধ্যে তিনি সীমাবদ্ধ ছিলেন না। তিনি রোম্যান্টিক গান থেকে শুরু করে ভজন, কাওয়ালী, রাগাশ্রয়ী সহ সব ধরনের গানেতেই ছিল তাঁর অনায়াস যাতায়াত।

একবার গরু ছবিতে ‘বোলো গুরু বোলো হোগা কেয়া’ গানটির মধ্য দিয়ে বাপ্পি লাহিড়ী বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, প্রজন্মের পর প্রজন্মকে বুঁদ করে রাখার গায়কী তাঁর জানা। বাংলা সংগীতেও বাপ্পি লাহিড়ী রেখে গেছেন উল্লেখযোগ্য অবদান। ভোলা যাবে না প্রসেনজিতের অমরসঙ্গী’র ‘চিরদিনই তুমি যে আমার।’ আবার এই ডিস্কো কিংয়ের হাতেই তৈরি হয়েছিল প্রতিদান ছবির ‘ মঙ্গলদীপ জ্বেলে অন্ধকারে দু’চোখ আলোয় ভরো প্রভু।’ হিন্দি ও বাংলা গানের স্মরণীয় সুরস্রষ্টা বাপ্পি লাহিড়ীর নামে একটি সংগীত একাডেমি গড়া যেতে তাঁর পূর্বপুরুষদের ভিটায়।

বাপ্পি লাহিড়ীর পিতা অপরেশ লাহিড়ীর গাওয়া – এই দুনিয়া চিড়িয়াখানা রং বেরঙের মানুষ নানা; এই জীবন্ত নাটকের নাট্যশালায় কেউ হাহা হিহি হাসছে; সেদিন তোমায় আমি বলেছিনু; সামনে পিছে ডাইনে বামে; খবর এসেছে ঘর ভেঙেছে – ইত্যাদি গান আজও আমাদের স্মৃতিতে জ্বলজ্বল করছে।

বাপ্পি লাহিড়ীকে নিয়ে গান

বাপ্পি লাহিড়ী, বাপ্পি লাহিড়ী, বাপ্পি লাহিড়ী।
তোমরা কি কেউ জানো রে ভাই, প্রাণ কোথায় যায়?
দেহের ভিতর বসবাস করে যে জন,
সে কোথায় যায় রে ভাই কোথায় যায়।
তরতাজা মানুষটি ভাই সুরের সম্রাট বাপ্পি লাহিড়ী
তাহার দেহের প্রাণ কোথায় গেল রে ভাই কোথায় যায়,
কেউ জানে না হায়, জানেই শুধু দেহ চিতায় দিতে।
প্রাণ কোথায় যায়, খুঁজে বের করো রে ভাই বের করো
ও মানুষ কত পারো, পারো না কেন দেহের প্রাণ ধরে রাখতে?
প্রাণ কোথায় গেল, খুঁজে বের করো সবাই মিলে
তবে আবার ফিরবে, আবার ফিরবে ডিসকো গানের সবার প্রিয় বাপ্পি লাহিড়ী
তোমরা কি জানো রে ভাই তাহার পূর্বপুরুষদের ঠিকানা?
বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়ায় বাপ্পি লাহিড়ীর আদিনিবাস।
উল্লাপাড়ায় দখলীদের উচ্ছেদ করে এবার গড়ো রে ভাই গড়ো বাপ্পি লাহিড়ী সংগীত একাডেমি।
বাপ্পি লাহিড়ী বাপ্পি লাহিড়ী বাপ্পি লাহিড়ী বাপ্পি লাহিড়ী।

লেখক : প্রাবন্ধিক; রূপনগর, ঢাকা, বাংলাদেশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

এক ক্লিকে বিভাগের খবর

error: Content is protected !!