1. admin@pathagarbarta.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৫:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আন্দোলনের নামে মুক্তিযুদ্ধের অবমাননাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি একাত্তরে বাংলাদেশে গণহত্যার ন্যায়বিচার ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য বিশ্বের বিশিষ্টজনদের আহবান দুই বঙ্গকন্যা ব্রিটিশ মন্ত্রীসভায় স্থান পাওয়াতে বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরামের আনন্দ সভা ও মিষ্টি বিতরন যৌন প্রজনন স্বাস্থ্য অধিকার নেটওয়ার্ক নিয়ারস্ নির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত অনুবাদক অধ্যক্ষ মোঃ কোরেশ খান এবং গবেষক ও ড.রণজিত সিংহের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত সাংবাদিক শাহাব উদ্দিন বেলালকে স্মরণ ও স্মারক প্রকাশনা অনুষ্ঠিত সিলেটের মেয়রের কাছে আলতাব আলী ফাউন্ডেশনের স্মারকলিপি প্রদান মুক্তিযুদ্ধ আমার অহংকার- দেবেশ চন্দ্র সান্যাল বৃটেনের কার্ডিফ বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের উদ্দ্যোগে ঈদ পূনর্মিলনী অনুষ্ঠিত অনলাইন সাহিত্য গ্রোপের ঈদ পুনর্মিলনী

বঙ্গবন্ধু ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় না থাকলে স্বাধীনতা অর্জন সম্ভব হতো না- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

পাঠাগার বার্তা
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২২
  • ৯৪ বার পঠিত

পাঠাগার বার্তা ডেস্ক : সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় না থাকলে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন সম্ভব হতো না। বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাসের সঙ্গে এ দু’টি নাম অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত। একজন মহান মানুষ যিনি স্বাধীনতা আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়ে মহীরুহে পরিণত হয়েছিলেন। অন্যদিকে আরেকটি মহৎ প্রতিষ্ঠান যেটি এ অঞ্চলে শিক্ষার আলো প্রসারের পাশাপাশি স্বাধীনতাসহ বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলন-সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। উভয়ই প্রায় সমবয়সী। জাতির পিতা জন্মগ্রহণ করেন ১৯২০ সালে, অন্যদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯২১ সালে।

প্রতিমন্ত্রী আজ বিকালে রাজধানীর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনের অ্যালামনাই ফ্লোরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষের স্মারক হিসাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন নির্মিত ‘রং তুলিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’ শীর্ষক স্থায়ী আর্ট গ্যালারির উদ্বোধন ও চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন এর সভাপতি আনোয়ার উল আলম চৌধুরী (পারভেজ) এর সভাপতিত্বে গ্যালারি ও চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল।

প্রধান অতিথি বলেন, অসচ্ছল শিল্পীদের কল্যাণে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে অসচ্ছল শিল্পীদের নিয়মিত অনুদান প্রদান করা হচ্ছে। করোনাকালীন প্রায় ২০ হাজার অসচ্ছল শিল্পীকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। তাছাড়া সম্প্রতি সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ১৮তম দপ্তর হিসেবে যাত্রা শুরু করেছে ‘বাংলাদেশ শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট’। সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এ সংস্থার জন্য ‘সিড মানি’ হিসেবে ৫০ কোটি টাকা প্রদান করেছেন। সংস্থাটির পক্ষ থেকে শিল্পীদের কল্যাণে নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণের পাশাপাশি শিল্পীদের সন্তানদের বৃত্তি প্রদান করা হবে এবং শিল্প-সংস্কৃতি ক্ষেত্রে গবেষণায় অনুদান প্রদান করা হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন এর প্রাক্তন সভাপতি এ. কে. আজাদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূইয়া, বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী অধ্যাপক রফিকুন নবী, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আলী রেজা ইফতেখার ও ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমরানুল হক। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন এর মহাসচিব মোল্লা মোহাম্মদ আবু কাওছার। শিল্পীদের পক্ষ থেকে অনুভূতি ব্যক্ত করেন কামাল পাশা।

উল্লেখ্য, ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন অ্যালামনাইয়ের শিল্পী সদস্যদের দ্বারা সম্পাদিত মোট ১১৩টি শিল্পকর্ম সংগ্রহ করে যার মধ্যে ১০৬টি চিত্রকর্ম ও বাকি ৭টি ভাস্কর্য। এসব শিল্পকর্মে প্রতিফলিত হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষের গৌরবময় ইতিহাস, ঐতিহ্য, স্থাপনা, আন্দোলন-সংগ্রাম ও কৃতি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অর্জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

এক ক্লিকে বিভাগের খবর

error: Content is protected !!